৫১ বছরেও চৌকিতে ঘুমায়নি আরতী-জীবন দম্পতি

৫১ বছরেও চৌকিতে ঘুমায়নি আরতী-জীবন দম্পতি
৫১ বছরেও চৌকিতে ঘুমায়নি আরতী-জীবন দম্পতি

বিয়ের পরের বছরেই  টিউমার রোগে মারা যায় তাদের একমাত্র সন্তান। বলছি আরতি এবং জীবন দম্পতির কথা। এরপর আর বাচ্চা সন্তান হয়নি। অভাবে কাটাচ্ছে দিনগুলো। আরতীর বিয়ে হয়েছে ১২বছর বয়সে। ৫১ বছর পার হয়েছে তাদের বিয়ের। কিন্তু এই দম্পতি ৫১বছরে চৌকিতে একদিনের জন্যও ঘুমায়নি।  তারা বসবাস করে  লক্ষীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার ১নং ইউনিয়নের ক্যাম্পের হাটের উত্তরে।

আরতী জানান, তার স্বামী জীবন মানুষের ঘরে ঘরে কাজ করতো। তাদের দেয়া খাওয়া খেয়ে দিন পার করছে। তার স্বামী অসুস্থ।  পরিশ্রম করতে পারেনা। উপার্জন করার মতো ক্ষমতা নেই।  এসব কথা বলতে বলতে আরতী দিদি কান্নায় ভেঙ্গে পরেন। 

হিন্দু এই দম্পতির দুর্দশা দেখে এগিয়ে এসেছে রায়পুর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট মারুফ বিন জাকারিয়া। তিনি তাদের নতুন ঘরে করে দিয়েছেন। ঘরে চৌকিসহ বিছানাও করে দিয়েছেন। 

মারুফ বিন জাকারিয়া একজন রাজনীতি এবং ক্যারিয়ারের পাশাপাশি গরীব অসহায় মানুষের পাশে থাকেন।  তাদের স্বাবলম্বী করে দেন। বাড়ি করেন। এভাবে অনেক পরিবারকে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন এই তরুণ আইকন।