দুধ আর আনারস একসাথে খেলেই কি মৃত্যু হয়?

আনারস আর দুধ একসাথে খেলেই মৃত্যু! সত্য নাকি প্রচলিত কুসংস্কার? আমাদের দেশে প্রায় সকলের মধ্যেই প্রচলিত একটি বিশ্বাস পোষণ করে আছে। সেটি হলো, আনারস আর দুধ একসাথে খেলেই মৃত্যু অনিবার্য! দুইটির সংমিশ্রণে দেহে ঘটে বিষক্রিয়া! কিন্তু আসলেই কি তা সত্য? চলুন জেনে নেওয়া যাক এর প্রকৃত রহস্য। প্রথমত বলে রাখা ভালো, আনারস আর দুধ একসাথে খেলে কোন মৃত্যুঝুঁকি নেই। এটি কেবলমাত্র প্রচলিত একটি কুসংস্কার। তাহলে কিভাবে সাধারণ মানুষের মধ্যে এই বিশ্বাসটি এলো? এই বিশ্বাস নিয়ে নিয়ে ছোট্ট একটি লোককথা আছে। আমরা জেনে থাকবো যে, আনারস সাধারণত ঝোপঝাড়ের মধ্যেই হয়। আর ঝোপ মানেই সাপের আনাগোনা। প্রচলিত আছে, একবার এক বিষধর সাপ আনারসের ঝোপে ঘাপটি মেরে ছিল। কোনোভাবে সেই সাপ আনারসের গায়ে বিষ ঢেলে দিয়েছিল। এরপর সেই বিষাক্ত আনারস খেয়ে ফেলেন এক ব্যক্তি। এর পরপরই চুমুক দেন দুধের গ্লাসে। ব্যস, খানিক পরেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি। ফলে লোকজন ধরে নেয়, আনারসের পর দুধ পান করায় তিনি প্রাণ খুইয়েছেন এবং তারপর থেকেই ছড়িয়ে পড়ে সেই কুসংস্কার—আনারস আর দুধ একসঙ্গে খেয়েছেন তো মরেছেন! আচ্ছা তাহলে সত্যি সত্যি-ই আনারস আর দুধ একসঙ্গে খেলে কিছুই হয়না? কথায় আছে, যা রটে একটু হলেও ঘটে। আনারসে মূলত ভিটামিন-সি, ফসফরাস, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম রয়েছে যা একটি টক জাতীয় ফল। অপরদিকে, দুধ হলো একটি সুষম খাদ্য যাতে আমিষ, ভিটামিন, স্নেহ সহ প্রায় সকল গুনাগুণই বিদ্যমান। এইদিকে, আনারস অ্যাসিডিক হওয়ায় এটি খাওয়ার পর দুধ খেলে তা ছানা হয়ে যেতে পারে বা ভেঙ্গে যেতে পারে। ফলে পেটে ব্যাথা, বদ হজম কিংবা যাদের এসিডিটির সমস্যা আছে সেটি বেড়ে যেতে পারে, বিশেষ করে খালি পেটে। আর এইদিকে আপনি ভাবলেন যা গেলো সব! মৃত্যু বুঝি হানা দিলো এখন! না, তেমন কিছুনা এটি একটি ফুড ট্যাবু বা খাদ্য কুসংস্কার। তাই মোদ্দাকথা, আনারস আর দুধ একসাথে খেলে বিষক্রিয়ায় মৃত্যু হবার কোন ঝুঁকি নেই। এটি শুধুমাত্র আমাদের মধ্যে একটি প্রচলিত বিশ্বাস ছাড়া আর কিছুইনা। লেখাঃ Md. Hasnat Bin Habib তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট

দুধ আর আনারস একসাথে খেলেই কি মৃত্যু হয়?
ছবিটি নেট থেকে সংগ্রহ করা